মেকআপে প্যানকেক মেকআপ একটা নতুন কনসেপ্ট

বার্তাবহ ডেস্ক:

পার্টি হোক কি বিয়ে বাড়ি, প্যানকেক মেকআপ করা মানেই আপনিই সেখানে হিট। তাই ব্যবহারের পদ্ধতি আগে জেনে নিন ভালো করে। এখন মেকআপে প্যানকেক মেকআপ একটা নতুন কনসেপ্ট। জাস্ট একটু লাগালেই পুরো ফেস কভার হয়ে যায়। দেয় একটা সুন্দর কভারেজ। 

কিভাবে লাগাবেন বাড়িতে প্যানকেক জেনে নিন-

স্পঞ্জ ভিজিয়ে নিন: সমস্ত প্যানকেকের সাথেই মেকআপ স্পঞ্জ দেয়। আগে স্পঞ্জ ভিজিয়ে নিতে হবে। হালকা কভারেজের জন্য বা রেগুলার লুকের জন্য স্পঞ্জ একটু ভেজান। আর খুব বেশি চড়া মেকআপের জন্য স্পঞ্জ একটু বেশি ভিজিয়ে ব্যবহার করুন। স্পঞ্জ ভিজিয়ে প্যানকেক লাগিয়ে নিয়ে, এবার এটা মুখে লাগান। প্যানকেক এমনিতেই খুব ডিপ কভারেজ দেয়। তাই খুব বেশি লাগানোর দরকার পড়ে না। তাই নিজের স্কিন টোনের থেকে হালকা শেড কিনুন।

মুখে লাগান: স্পঞ্জ ভিজিয়ে প্যানকেক নিন। এবার এটা পুরো মুখে, গলায় লাগান। হালকা লুকের জন্য জাস্ট একটু প্যানকেক লাগিয়ে নিন। তবে প্যানকেক খুব ডিপ কভারেজ দেয়। তাই খুব বেশি লাগানোর দরকার পড়বে না। একটু নিয়ে মুখের সবদিকে, বিশেষত নাকের দুপাশে কপালটা বেশি  করে হাইলাইট করে নিন। এতে লুকটা আরো পারফেক্ট আসবে লাগানোর পর। প্যানকেক স্পঞ্জ দিয়ে ভালো করে মুখে মেকআপ ব্লেণ্ড করে নিন।

কিছুক্ষণ ওয়েট করুন: প্যানকেক মেকআপ লাগানো কমপ্লিট। এবার একে শুকোতে দিন। যেহেতু ভিজিয়ে লাগানো হয় প্যানকেক। তাই লাগানোর পর একটু ওয়েট করবেন। বেশিক্ষণ নয় ওই ১ থেকে ২ মিনিট ওয়েট করুন। আর যদি একদম লাইট কভারেজ চান, তাহলে একটা টিস্যু পেপার দিয়ে মুখের ওপর চেপে ধরুন। ঘষবেন না জাস্ট চেপে ধরুন।ব্যাস এতেই এক্সট্রা তেল,মেকআপ উঠে আসবে এবং দেবে একদম পারফেক্ট কভারেজ।

মেকআপ সেট করুন: প্যানকেক মেকআপ তো লাগানো হল, এবার একে মুখে তো অনেকক্ষণ রাখতে হবে। সেই পারফেক্ট লুকটা যাতে অনেকক্ষণ বজায় থাকে, তার জন্য এবার কমপ্যাক্ট পাউডার মুখে পাফ করে নিন। তবে লাগাবার আগে এটা দেখে নেবেন যে প্যানকেক মেকআপ পুরোপুরি শুকিয়েছে কিনা। ভালোভাবে শুকিয়ে গেলে, তারপরই কমপ্যাক্ট পাউডার লাগাবেন। না শুকোলে এর ওপর কিন্তু পাউডার পাফ করবেন না। তাই মেকআপ লাগানোর পর একটু ওয়েট করবেন।

মেকআপকে আরো হাইলাইট করার জন্য: মেকআপকে আরো হাইলাইট করার জন্য প্যানকেকের দুটো শেড থাকলে ভালো। একটা লাইট শেড, আরেকটা স্কিন টোনের থেকে একটু ডার্ক। এই দুটো শেড দিয়ে মুখকে আরও বেশি হাইলাইট করা যায়। কপাল, নাক গালকে আরও বেশি হাইলাইট করা যায়। এরজন্য পুরো মুখে প্রথমে লাইট শেড লাগিয়ে, তারপর ডার্ক শেড, তার ওপর আবার লাইট শেড। কিন্তু ডার্ক শেডটা সঠিকভাবে লাগাতে হবে। নাহলে আবার লুকটা বিগড়ে যাবে। কিভাবে হাইলাইট করবেন দেখুন।

প্রথমে মুখকে রেডি করুন: পারফেক্ট লুকের জন্য মুখকে রেডি তো করতেই হবে। তাই প্রথমে মুখ পরিষ্কার করে, ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন। স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড করা কিন্তু খুবই দরকার। এটা যেকোনো মেকআপ শুরুর আগেই করতে হবে। এরপর প্যানকেক মেকআপ লাগানো শুরু করুন। প্রথমে একদম হালকা করে প্যানকেক পুরো মুখে লাগিয়ে নিন। এরপর মুখের এক একটা পার্ট হাইলাইট করুন। ডার্ক শেড দিয়ে।

কিভাবে লাগাবেন দুটো শেড: কপালকে হাইলাইট করতে, প্রথমে ডার্ক শেডটা নিন। এবার স্পঞ্জে নিয়ে, ডার্ক শেডের একটা লাইন টানুন, কপালের একদম ওপরে, মানে চুলের ঠিক নিচে। বাঁ দিক থেকে ডান দিকে একটা লাইন টানুন স্পঞ্জ দিয়ে। এরম একই লাইন টানুন গালের দুপাশে। ওপর থেকে নীচে লাইন টানবেন গালের পিছনের দিকে। মানে কানের দুপাশ থেকে চোয়ালের দিকে লাইন টানুন। এবার লাইট শেড ওই ডার্ক শেডের ওপর হালকা করে দিন। মানে ডার্ক শেডটা যেন দেখা না যায়, আবার একদম চাপাও না পড়ে যায় এমনভাবে লাগাবেন। এইভাবে কপাল ও গালের বাকি অংশেও হালকা শেডটা লাগান। লাগিয়ে ভালো করে স্পঞ্জ দিয়ে ব্লেণ্ড করে দিন।

নাককে আরো সুন্দর দেখানোর জন্য: নাক একটু চওড়া? তাহলে নাককে লম্বা সুন্দর দেখানোর উপায়ও আছে। কাজে লাগান দুটো শেডের প্যানকেক। প্রথমে ডার্ক শেড দিয়ে নাকের দুপাশে লাইন টানুন। ঠিক ওপরের ছবিতে যেমন দেওয়া আছে, সেইভাবে লাইন টানুন ডার্ক শেড দিয়ে। এবার লাইট শেড দিন। মানে ওই ডার্ক রঙটাকে চাপা দিয়ে দিন। এভাবে দেখবেন নাক কেমন সুন্দর লাগছে।

তাহলে এখন থেকে আপনি আপনার মেকআপ আরো পারফেক্ট করে তুলতে প্যানকেক ব্যবহার করেই দেখতে পারেন। এমন মেকআপ আর কখনো করেননি বলতে পারি।