পবিত্র কোরআনের ১১৪টি সূরার বাংলা নাম

বার্তাবহ ডেস্ক:

আল কোরআন ইসলাম ধর্মের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ ইসলামের ইতিহাস অনুসারে দীর্ঘ তেইশ বছর ধরে খণ্ড খণ্ড অংশে এটি ইসলাম ধর্মের সর্বশেষ নবী রাসূলে পাক (সা.) এর নিকট অবতীর্ণ হয় কুরআনে সর্বমোট ১১৪টি সূরা আছে এবং আয়াত সংখ্যা ,৬৬৬ টি এটি মূল আরবি ভাষায় অবর্তীর্ণ হয় মুসলিম চিন্তাধারা অনুসারে কুরআন ধারাবাহিকভাবে অবর্তীর্ণ ধর্মীয় গ্রন্থগুলোর মধ্যে সর্বশেষ

এখন জেনে নিন, পবিত্র কোরআনে উল্লেখিত ১১৪টি সূরার বাংলা অর্থ

১। আলফাতিহা (সূচনা)

২। আলবাকারা (বকনাবাছুর)

৩। আলইমরান (ইমরানের পরিবার)

৪। নিসা (নারী)

৫। আলমায়িদাহ (খাদ্য পরিবেশিত টেবিল)

৬। আলআনাম (গৃহপালিত পশু)

৭। আলআরাফ (উচু স্থানসমূহ)

৮। আলআনফাল (যুদ্ধেলব্ধ ধনসম্পদ)

৯। আততাওবাহ (অনুশোচনা)

১০। ইউনুস (একজন নবী)

১১। হুদ (একজন নবী)

১২। ইউসুফ (একজন নবী)

১৩। আররাদ (বজ্রনাদ)

১৪। ইবরাহীম (একজন নবী)

১৫। আলহিজর (পাথুরে পাহাড়)

১৬। আননাহল (মৌমাছি)

১৭। বনি ইসরাইল (ইহুদী জাতি)

১৮। আলকাহফ (গুহা)

১৯। মারিয়াম (নবী ঈসা(আঃ) এর মা)

২০। ত্বা হা (ত্বা হা)

২১। আলআম্বিয়া (নবীগণ)

২২। আলহাজ্ব (হজ্ব)

২৩। আলমুমিনুন (মুমিনগণ)

২৪। আননূর (আলো)

২৫। আলফুরকান (সত্য মিথ্যার পার্থক্য নির্ধারণকারী গ্রম্থ)

২৬। আশশুআরা (কবিগণ)

২৭। আননমল (পিপীলিকা)

২৮। আলকাসাস (কাহিনী)

২৯। আলআনকাবুত (মাকড়সা)

৩০। আলরুম (রোমান জাতি)

৩১। লুকমান (একজন জ্ঞানী ব্যাক্তি)

৩২। আসসাজদাহ (সিজদা)

৩৩। আলআহযাব (জোট)

৩৪। আসসাবা (রানী সাবা/শেবা)

৩৫। আলফাতির (আদি স্রষ্টা)

৩৬। ইয়া সিন (ইয়া সিন)

৩৭। আসসাফফাত (সারিবদ্ধভাবে দাড়ানো)

৩৮। সোয়াদ (আরবি বর্ণ)

৩৯। আযযুমার (দলবদ্ধ জনতা)

৪০। আলমুমিন (বিশ্বাসী)

৪১। হামিম সাজদাহ (সুস্পষ্ট বিবরণ)

৪২। আশশূরা (পরামর্শ)

৪৩। আযযুখরুফ (সোনাদানা)

৪৪। আদদুখান (ধোয়া, smoke)

৪৫। আলজাসিয়াহ (নতজানু)

৪৬। আলআহকাফ (বালুর পাহাড়)

৪৭। মুহাম্মদ [নবী মুহাম্মদ :]

৪৮। আলফাতহ (বিজয়)

৪৯। আলহুজুরাত (বাসগৃহসমুহ)

৫০। ক্বাফ (আরবি বর্ণ)

৫১। আযযারিয়াত (বিক্ষেপকারী বাতাস)

৫২। আততুর (একটি পাহাড়ের নাম)

৫৩। আননাজম (তারা)

৫৪। আলক্বমর (চন্দ্র)

৫৫। আররাহমান (পরম করুণাময়)

৫৬। আলওয়াকিয়াহ (নিশ্চিত ঘটনা)

৫৭। আলহাদিদ (লোহা)

৫৮। আলমুজাদিলাহ (অনুযোগকারিণী)

৫৯। আলহাশর (সমাবেশ)

৬০। আলমুমতাহানা (নারী যাকে পরিক্ষা করা হবে)

৬১। আসসাফ (সারবন্দী সৈন্যদল)

৬২। আলজুমুআহ (সম্মেলন/ শুক্রবার)

৬৩। আলমুনাফিকুন (কপট বিশ্বাসীগণ)

৬৪। আততাগাবুন (মোহ অপসারণ)

৬৫। আতত্বালাক (তালাক)

৬৬। আততাহরীম (নিষিদ্ধকরণ)

৬৭। আলমুলক (সার্বভৌম কতৃত্ব)

৬৮। আলক্বলম (কলম)

৬৯। আলহাক্ক্বাহ (নিশ্চিত সত্য)

৭০। আলমাআরিজ (উন্নয়নের সোপান)

৭১। নূহ (একজন নবী)

৭২। আলজ্বিন (জ্বিন সম্প্রদায়)

৭৩। মুযাম্মিল (বস্ত্রাচ্ছাদনক ারী)

৭৪। মুদাসসির (পোশাক পরিহিত)

৭৫। আলকিয়ামাহ (পুনরু্ত্তান)

৭৬। আলইনসান (মানুষ)

৭৭। আলমুরসালাত (প্রেরিত পুরুষগণ)

৭৮। আননাবা (মহাসংবাদ)

৭৯ আননাযিয়াত (প্রচেষ্টাকারী)

৮০। আবাসা (তিনি ভ্রুকুটি করলেন)

৮১। আততাকবির (অন্ধকারাচ্ছন্ন )

৮২। আলইনফিতার (বিদীর্ণ করা)

৮৩। আততাতফিক (প্রতারণা করা)

৮৪। আলইনশিকাক (খন্ডবিখন্ড করণ)

৮৫। আলবুরুজ (নক্ষত্রপুন্জ)

৮৬।আততারিক (রাতের আগন্তুক)

৮৭। আলআলা (সর্বোন্নত)

৮৮। আলগাশিয়াহ (বিহ্বলকর ঘটনা)

৮৯। আলফজর (ভোরবেলা)

৯০। আলবালাদ (নগর)

৯১। আশশামস (সূর্য)

৯২। আললাইল (রাত্রি)

৯৩। আদদুহা (পূর্বান্হের সুর্যকিরণ)

৯৪। আলইনশিরাহ (প্রশস্তকরণ)

৯৫। আততীন (ডুমুর)

৯৬। আলআলাক (রক্তপিন্ড)

৯৭। আলক্বাদর (মহিমান্বিত)

৯৮। আলবাইয়িনাহ (সুস্পষ্ট প্রমাণ)

৯৯। আলযিলযাল (ভূমিকম্প)

১০০। আলআদিয়াত (অভিযানকারী)

১০১। আলকারিয়াহ (মহাসংকট)

১০২। আততাকাছুর (প্রাচুর্যের প্রতিযোগিতা)

১০৩। আলআসর (সময়)

১০৪। আলহুমাযাহ (পরনিন্দাকারী)

১০৫। ফীল (হাতি)

১০৬। আলকুরাইশ (কুরাইশ গোত্র)

১০৭ আলমাউন (সাহায্যসহায়তা )

১০৮। আলকাওসার (প্রাচুর্য)

১০৯। আলকাফিরুন (অবিশ্বাসী গোষ্ঠী)

১১০। আননাসর (স্বর্গীয় সাহায্য)

১১১। লাহাব (জ্বলন্ত অংগার)

১১২। আলইখলাস (একত্ব)

১১৩। আলফালাক (নিশিভোর)

১১৪। আননাস (মানবজাতি)